নৈহাটিতে বিজেপি কর্মীকে গুলি করে, চপার দিয়ে কোপানোর অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে ।

0
15

রবিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটি বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী ফাল্গুনী পাত্রের হয়ে প্রচার সেরে বাড়ি ফেরার পথে মিঠুন পাসওয়ান নামে এক বিজেপি কর্মীকে কুপিয়ে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে । এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে নৈহাটির গৌরীপুর এলাকায় । ঘটনা প্রসঙ্গে জানা গেছে, রবিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটি বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী ফাল্গুনী পাত্রের হয়ে প্রচার সেরে বাড়ি ফিরছিলেন মিঠুন পাসওয়ান তার ভাই জীতেন্দ্র পাসওয়ান সহ জনা পাঁচেক বিজেপি কর্মী । সেই সময় গৌরীপুরের কাছে তৃণমূলের জনা ৩০ দুস্কৃতি তাদের ঘিরে ধরে । এরপরই তারা মিঠুনকে বিজেপির হয়ে কাজ না করার জন্য শাসানোর পাশাপাশি তার মাথায়, পিঠে, হাতে চপার দিয়ে কোপ মারে । এরপর তাকে লক্ষ্য করে চারটি গুলি করে সেখান থেকে পালিয়ে যায় দুস্কৃতিরা । এবিষয়ে মিঠুনের ভাই জীতেন্দ্র জানায় কাউ, উমেশ সিং, রবি, রাম, বিষ্ণু, অভিজিত, কালু সহ তৃণমূলের প্রায় জনা ৩০ দুস্কৃতি তাদের ঘিরে ধরে প্রথমে মিঠুনকে মারে । পাশাপাশি তাকেও মারধোর করে এবং চপারের কোপ মারে । এরপর সেখান থেকে দুস্কৃতিরা চলে গেলে অন্যান্য আহত বিজেপি কর্মীরা রক্তাক্ত অবস্থায় মিঠুনকে উদ্ধার করে প্রথমে নৈহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় । সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কল্যাণীর জহরলাল নেহেরু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । পরে মিঠুনের শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় তাকে সেখান থেকে রাতেই কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় । ইতিমধ্যেই নৈহাটি থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলেও আপাতত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয় নি বলেই জানা গেছে । রাতেই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে ছুটে যান নৈহাটি বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী ফাল্গুনী পাত্র । এবিষয়ে ফাল্গুনী বলেন, বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী অস্ত্র নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে । এমনকি বিজেপির কার্যকর্তাদের ও সাধারণ মানুষকে ভয় দেখাতে গুলি চালানোর পাশাপাশি বোমাবাজি করছে যাতে কেউ ভোট দিতে না পারেন । তিনি আরও বলেন, পুলিশের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনকেও বিষয়টি জানানো হলেও কোনও সুরাহা হয়নি ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে