আদিত্য নিয়োগী সুস্থ হয়ে ফেরার পর আজ পৌরপ্রসাশক হিসাবে দায়িত্ব নিলেন বাঁশবেড়িয়া পৌরসভার l

0
18

11ই মে বাড়িতে কালী পুজোর জন্য ফল কিনতে বেরিয়েছিলেন হুগলি জেলার বাঁশবেড়িয়া পৌরসভার বিদায়ী উপ পৌর প্রধান আদিত্য নিয়োগী। সকাল সাড়ে নটা নাগাদ স্হানীয় বাঁশবেড়িয়া বেলতলা বাজারে হঠাৎ কে বা কারা পিছন দিক থেকে গুলি চালায় ।তাতেই পিঠে গুলি লাগে প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান আদিত্য বাবুর। স্থানীয় নেতাকর্মীরা প্রথমে পার্টি অফিস সেখান থেকে তাকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া সদর হাসপাতাল এবং পরে চুঁচুড়ার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে  নিয়ে যান,সেই নার্সিং হোমে অপারেশন করার পরিকাঠামো না থাকায় তাকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনায় দলেরই এক নেতার তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ।আহত অবস্থায় আদিত্য নিয়োগী বলেন কারা গুলি মেরেছে তিনি দেখতে পাননি। তবে তার সন্দেহ এর পিছনে সত্যরঞ্জন শিল এর পিছনে রয়েছে।কারণ গত পাঁচ বছর ধরে তার সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলছিল। এর আগেও বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে ছিল সোনা। আদিত্য নিয়োগী ছিলেন বাঁশবেড়িয়া পুরসভার ভাইস-চেয়ারম্যান সেই কারণে পৌরসভায় প্রতি পত্তি যথেষ্ট ছিল। তার উপর বর্তমান প্রশাসক অরজিতা শীল। তিনি সোনা শীলের স্ত্রী হওয়ার সুবাদে বাঁশবেড়িয়া পৌরসভা কার দখলে থাকবে তা নিয়েই আগে থেকেই দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছিল।তৃণমূল নেতা রাজা চ্যাটার্জী এবং অমিত ঘোষ এর অভিযোগ আদিত্য নিয়োগির নেতৃত্বেই তারা পুরসভার দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। সেই কারণেই এই হামলা ।আদিত্য নিয়োগী সুস্থ হয়ে ফেরার পর আজ পৌরপ্রসাশক হিসাবে দায়িত্ব নিলেন বাঁশবেড়িয়া পৌরসভার l প্রথমে বাড়ি থেকে বেরিয়ে ঐতিহাসিক হংসেশ্বরি মন্দিরে পুজো দিয়ে পুলিশ প্রহরায় পৌরসভাতে যাওয়ার পর হুইল চেয়ারে বসে পৌর দফতরে গিয়ে বসে পৌরসভার দায়িত্ব নেন। পাশাপাশি পৌর এলাকার বেশকিছু মানুষ যারা এই সময় কোভিট আক্রান্ত দের পাশে দাঁড়াছেন সেরকম বেশকিছু মানুষের হাতে কিট,গ্লাপ্স,মাস্ক ও সেনিটাইজার তুলে দেন নতুন পৌর প্রশাসক আদিত্য নিয়োগি বাবু।পরে  তৃণমূল কর্মী থেকে পৌরকর্মচারি রা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।খুশি বিভিন্ন ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর থেকে পৌরকর্মচারি এবং বাঁশবেড়িয়া বাসিদায়িত্ব নিয়ে আদিত্য নিয়োগী বলেন পৌরসভা দুর্নীতি মুক্ত  করবো l কোনো গরিব মানুষের চোখের জল এই পৌরসভা ফেলবে না l

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে