সিঙ্গুরের বাম প্রার্থী সৃজনের হয়ে প্রচারে নন্দীগ্রামের বাম প্রার্থী মীনাক্ষী ।

0
44

২০১১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসকে রাজ্যের ক্ষমতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে দুটি আঁতুড়ঘড় হিসাবে পরিচিতি পেয়েছিল সিঙ্গুর ও নন্দীগ্রাম । এমনকি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও বহুবার একথা সবাইকে জানিয়েছেন সিঙ্গুরের আন্দোলন যেমন তাকে লড়াইয়ের মঞ্চ দিয়েছিল তেমনই পাশে ছিল নন্দীগ্রাম । বিগত দশ বছর ধরে বিভিন্ন সময়ে এক সারিতে উচ্চারিত হয়েছে এই দুটি জায়গার নাম । এবার সেই দুই জায়গাতেই তৃণমূলের দুই মুখ তথা প্রাক্তণ মন্ত্রী দাঁড়িয়েছেন পদ্ম শিবিরের হয়ে । আর এবারে তৃণমূলের হয়ে নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়েছেন স্বয়ং মমতা ব্যানার্জি ও সিঙ্গুরে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন সিঙ্গুর আন্দোলনের আর এক মুখ তথা পাশের বিধানসভা হরিপালের বিগত দুইবারের বিধায়ক বেচারাম মান্না । তবে এই দুই জায়গাতেই এবার সংযুক্ত মোর্চার পক্ষে বামফ্রন্ট দুই নতুন মুখকে দাঁড় করিয়ে আলাদা চমক দিয়েছে । সিঙ্গুরে সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী হলেন সৃজন ভট্টাচার্য ও নন্দীগ্রামে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী হয়েছেন সিপিএমের মীনাক্ষী মুখার্জি । যার ফলে দুই দশক পর আবারও ভোটের রাজনীতিতে এক বিন্দুতে এসে মিশে গেল রাজ্যে পালা বদলের সেই দুই আঁতুড়ঘড় নন্দীগ্রাম ও সিঙ্গুর । প্রসঙ্গত ২০০১ সাল থেকে গত চারবারের সিঙ্গুরের তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য বয়সজনিত কারণে এবারে তৃণমূলের টিকিট না পেয়ে সিঙ্গুর থেকেই প্রার্থী হয়েছেন বিজেপির । যা নিয়ে প্রথমে বিজেপির অন্দরে সমস্যা তৈরি হলেও এখন তা অনেকটাই মিটে গেছে । পাশাপাশি এবার যিনি সিঙ্গুরে তৃণমূলের প্রার্থী তাকে নিয়েও সিঙ্গুরে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আজ শুধু সিঙ্গুর নয় সারা রাজ্যের মানুষের কাছে অজানা কিছু নয় । আর সেই সুযোগকে কাজে লাগাতেই এবার উঠে পরে মাঠে নেমে পড়েছে সিপিএম । এদিন মীনাক্ষীকে পাশে পেয়ে সৃজন জানায় সিঙ্গুরের লড়াই আজ বাড়তি প্রেরণা পেল নন্দীগ্রামকে পাশে পেয়ে । এমনকি তার দাবী সিঙ্গুর আর নন্দীগ্রামকে কেন্দ্র করেই এক সময় একটা প্রজন্মের স্বপ্নভঙ্গ করার যে চেষ্টা হয়েছিল এদিন সেই দুই জায়গা থেকেই ফিনিক্স পাখির মতো নতুন করে স্বপ্ন দেখা শুরু । পাশাপাশি তিনি আরও জানান নতুন প্রজন্মের কর্মসংস্থানের লক্ষ্য নিয়ে নন্দীগ্রাম ও সিঙ্গুরের মতো রাজ্যের সব জায়গাতেই সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থীরা লড়াই করছে । কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ বামেদের সেই পুরনো স্লোগানও এদিন উঠে আসে মিছিল থেকে । অপরদিকে এদিন মিছিলে পা মিলিয়ে মীনাক্ষী জানায় নন্দীগ্রামে যেমন যাবতীয় চক্রান্ত ফাঁস হয়ে গেছে তেমনই এবার সিঙ্গুরেও হবে । এদিন তিনি তৃণমূল ও তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া নেতাদের উদ্দেশ্য করে জানান যারা এতদিন তৃণমূলে ছিলেন এখন তারা ভাবছেন বিজেপিতে গিয়ে সব কিছু থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে । কিন্তু তা হবে না তাদের মানুষের আদালতে দাঁড়তেই হবে ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে