ভোট মিটতেই অশান্ত বীরভূমের একাধিক এলাকা, আহত ৪ তৃণমূল কর্মী

0
2

বৃহস্পতিবার অষ্টম দফার ভোট শেষ হওয়ার পাশাপাশি শেষ হয়েছে বীরভূমের ভোটগ্রহণ। তবে এই ভোটগ্রহণ সমাপ্ত হওয়ার সাথে সাথেই বীরভূমের একাধিক এলাকা থেকে আসছে অশান্তির খবর। নানুর, ময়ূরেশ্বর, আহমেদপুর একাধিক এলাকায় রাজনৈতিক অশান্তি লক্ষ্য করা যাচ্ছে ভোট মিটে যাওয়ার পরেই।ভোট মিটে যাওয়ার পর উত্তপ্ত হয় বীরভূমের আহমেদপুর ফাঁড়ির অন্তর্গত সাহানি পাড়া। যেখানে তৃণমূল-বিজেপি একে অপরের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনায় এলাকার এক তৃণমূল কর্মী কৌশিক প্রামানিকের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এই ঘটনায় ৪ জন তৃণমূল কর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে তৃণমূল।কৌশিক প্রামানিকের অভিযোগ, “গতকাল ভোট মিটে যাওয়ার পর আমি গাড়ি নিয়ে বাড়ি ফিরলে পূর্বপরিকল্পিতভাবে বেশকিছু বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের আমার উপর চড়াও হয়। তাদের হাতে বন্দুক এবং অন্যান্য আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। তারপর তারা আমার গাড়ি ভাঙচুর করে। এলাকাই কোনরকম জনসংযোগ না থাকার কারণে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে।”যদিও তৃণমূলের তরফ থেকে এই দাবি করা হলেও পাল্টা বিজেপি কর্মী সমর্থকরা দাবি করেছেন, “কৌশিক প্রামানিক আমাদের এলাকার বিজেপি কর্মী সমর্থকদের নোংরা ভাষায় গালিগালাজ করে। ওর দাবি এলাকার সকলকে তৃণমূল করতে হবে। তারপর আমাদের ছেলেদের ধরে ধরে মারধর করতে শুরু করলো। বাড়িঘর ইত্যাদি ভেঙে দিয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে।”ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় উত্তেজনা থাকার কারণে আহমেদপুর ফাঁড়ি এবং সাঁইথিয়া থানার পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য। অন্যদিকে আহমেদপুর ছাড়াও একই রকম অশান্তির খবর পাওয়া যাচ্ছে নানুরের বন্দর গ্রাম থেকেও। অশান্তির খবর মিলেছে ময়ূরেশ্বর বিধানসভার অন্তর্গত দারকান্দি গ্রাম থেকেও।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে