ব্যাপক আর্থিক ক্ষতির মুখে বারুইপুরের ফল ও সবজি ব্যবসায়ীরা। সাঁড়াশি চাপে কার্যত দিশেহারা অবস্থায় তাদের।

0
6

ব্যাপক আর্থিক ক্ষতির মুখে বারুইপুরের ফল ও সবজি ব্যবসায়ীরা। সাঁড়াশি চাপে কার্যত দিশেহারা অবস্থায় তাদের। একদিকে লোকাল ট্রেন না চলায় বাজারে মাল এনেও তা পাঠানো যাচ্ছে না বিভিন্ন জায়গায়। অন্যদিকে নির্দিষ্ট সময় বাজার খোলা থাকায় অনেকেই বাজারে আসছেন না। ফলে অনেক মাল পড়ে থাকছে নতুবা কম দামেই করতে হচ্ছে। বারুইপুরে নিচু চাচি শাহাবুদ্দিন মোল্লা জানান অন্যান্য বছর যেখানে লিছুর ঝুড়ি বিক্রি হতো ৪ হাজার টাকায় এবার সেখানে 2 হাজার টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের। পেয়ারার ঝুড়ি দুশো টাকার পরিবর্তে বিক্রি হচ্ছে একশো টাকায়। একই অবস্থা আম এবং নানান সবজির। চাষের খরচ টুকুও উঠছে না বলে অভিযোগ তাদের। তবে চাষিরা দাম না পেলেও বাজারে কিন্তু দাম কমছে না ফল বা সবজির। লোকাল ট্রেন না চলায় সবজি আনার খরচ বাড়াতেই দাম লোকাল বাজারে দাম বাড়ছে ফল এবং সবজির। হলে দুর্ভোগ বাড়ছে সাধারণ মধ্যবিত্তের।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে