করোনার জেরে এ বছরের জন্য স্থগিত আইপিএল। সংবাদসংস্থা এএনআই-কে জানালেন রাজীব শুক্ল।

0
36

করোনার জেরে এ বছরের জন্য স্থগিত আইপিএল। সংবাদসংস্থা এএনআই-কে জানালেন রাজীব শুক্ল।করোনা সংকটের গুরুত্বের পরিপ্রেক্ষিতে আইপিএল প্রশাসন এবারের আইপিএলের সব ম্যাচই স্থগিত করে দিয়েছে। সবমিলিয়ে এখনও পর্যন্ত আইপিএলের চারটি দলের খেলোয়াড়দের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। 

সংক্রমিত হয়েছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ঋদ্ধিমান সাহা। সংক্রমিত হয়েছেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অমিত মিশ্রও।এর আগে সংক্রমিত হয়েছিলেন একাধিক তারকা।গতকাল সংক্রমিত হয়েছিলেন কেকেআর-এর বরুণ চক্রবর্তী।সংক্রমিত হয়েছিলেন সন্দীপ ওয়ারিয়রও।এর পরিপ্রেক্ষিতে বায়ো-বাবল নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। শেষপর্যন্ত টুর্নামেন্ট স্থগিতের ঘোষণা করা হল। 

আইপিএল পরিচালন কর্তৃপক্ষের  পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে, আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ও বিসিসিআই এক জরুরিকালীন  বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে আইপিএলের ২০২১ এর সিজন অবিলম্বে স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিসিসিআই খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ ও আইপিএল আয়োজনে জড়িত অন্যান্যদের সুরক্ষা নিয়ে কোনওভাবেই আপোস করতে চায় না। সংশ্লিষ্ট সবার স্বাস্থ্য ও সুস্থতার কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।এখন খুবই কঠিন সময় চলছে, বিশেষ করে ভারতে। এই সময় আমরা কিছুটা ইতিবাচক দিক ও বিনোদন দেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু একথা বলাই বাহুল্য, টুর্নামেন্ট এখন স্থগিত হয়ে গিয়েছে এবং প্রত্যেকের তাঁদের পরিবার ও প্রিয়জনদের কাছে ফিরে যাবেন।২০২১-এর আইপিএলে যোগদানকারীদের যাওয়ার বিষয়টি নিরাপদ ও সুরক্ষিত রাখতেসাধ্যমতো সব ধরনের ব্যবস্থা করবে বিসিসিআই।

উল্লেখ্য, করোনা সংকটের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর বেশ কয়েকবার টুর্নামেন্টের আয়োজন পিছিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল। এবার দেশেই আইপিএল শুরু হয়েছিল। কিন্তু দেশে এখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউ তীব্র উদ্বেগ তৈরি করেছে। 

এই কঠিন সময়ে আইপিএল আয়োজনে যাঁরা তাঁদের সেরাটুকু দিয়ে চেষ্টা চালিয়েছিলেন, সেই সব স্বাস্থ্য কর্মী, রাজ্য সংস্থাগুলি, খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ, ফ্র্যাঞ্জাইজি, স্পনসর, পার্টনার ও পরিষেবা প্রদানকারীদের ধন্যবাদ জানিয়েছে বিসিসিআই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে